যোগ্য কর্মি খোজার উপায়।

প্রতিষ্ঠানের জন্য যোগ্য কর্মি খুজে পাওয়ার উপায়ঃ

🎓🎓 যোগ্য কর্মিরাই পারে একটি প্রতিষ্ঠানকে যোগ্য যায়গায় নিয়ে যেতে।
👑 কোম্পানির ফাউন্ডার বা পরিচালকদের একটা বিষয়ে সবচেয়ে বেশি সতর্ক থাকতে হয়, সময় ব্যয় করতে হয়। আর সে বিষয়টি হল যোগ্য কর্মি বাহিনি কোম্পানিতে নিয়োগ দেয়া।
এটা যতটা সহজ মনে হয় আদতে সেটা এত সহজ নয়।
কারন এটার উপরে নির্ভর করেই আপনার কোম্পানির ভবিস্যত কেমন হবে সেটা নির্ধারিত হয়ে থাকে।

☑ ☑ আজকে আমরা কিছু টিপস শেয়ার করবো যা ফলো করলে যোগ্য প্রার্থী নিয়োগ দেয়া সহজ হবে।

👉 প্রথমেই নির্বাচন প্রক্রিয়ার ব্যাপারে নির্দিস্ট মানদণ্ড ঠিক করে নিন। যাতে কি কি ক্রাইটেরিয়ার উপর ফোকাস করে প্রার্থী নির্বাচক করবেন সেটা আগে থেকেই নির্ধারিত থাকে। যেটা যোগ্য প্রার্থির শর্তাবলি হিসেবে ব্যবহার করা যাবে।
👉 চাকুরির বিজ্ঞাপনে সঠিক ভাবে আপনার কোম্পানির চাহিদা তুলে ধরুন। যাতে সঠিক চাকুরিপ্রার্থীর আবেদন পাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যায়।
👉 আবেদন পাওয়ার পর সঠিক আবেদনের প্রেক্ষিতে নির্বাচন করুন কোন অংশ কে ইন্টারভিউ এর জন্য ডাকবেন। তবে অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে যাতে আবেদনের সাথে সাথে স্কিল বা অভিজ্ঞতা ধারি ব্যেক্তিদের যেন প্রাধান্য দেয়া হয়। সেখেত্রে এডুকেশন ব্যাকগ্রাউন্ডে কিছুটা শিথিলতা আনা যেতে পারে। এতে সঠিক প্রার্থির আবেদন পাওয়ার সম্ভাবনা অনেক বেড়ে যাবে।
👉 সাক্ষাৎকারঃ আবেদন অনুযায়ী সাক্ষাতকার নিয়ে সেখান থেকে এমন কাউকেই খুজে বের করতে হবে যে সাক্ষাতেই কোম্পানির কাজের ব্যাপারে অনেককিছু বুঝতে পারে। বা কোম্পানির কার্যপরিধির ব্যাপারে অভিজ্ঞতা বেশ ভাল। এছাড়া প্রশ্ন করার ক্ষেত্রে যে প্রশ্ন গুলো কোম্পানির অপারেশন এর সাথে সরাসরি জড়িত সেই প্রশ্ন গুলোই করতে হবে।
👉 সাক্ষাৎকারেই তুলে ধরুন চাকুরি পেলে কি কি কাজ করতে হবে, এবং কি কি নিয়ম পালন করতে হবে। কি করা যাবে, কি করা যাবে না ইত্যাদি। তবে এগুলো সেই প্রার্থীকে বলা যেতে পারে যারা চাকুরি পাওয়ার ক্ষেত্রে এগিয়ে আছে।
👉 মেডিকেল চেকআপঃ এটা এখনো তেমন গুরুত্বপুর্ন হয়ে না উঠলেও এটা অনেক গুরুত্বপুর্ন। চাকুরি করার পর কোম্পানি ভাল একটা যায়গায় যাওয়ার পর অসুস্থতা জনিত কারনে যদি চাকুরি চালিয়ে না যেতে পারে তবে কোম্পানি তখন অনেক বড় খতির সম্ভাবনায় পড়ে যায়।
আর এই সমস্যার সমাধান হল চূড়ান্ত নির্বাচনের আগে তাদের সাধারন মেডিক্যাল টেস্ট সম্পন্ন করা।
এই হল যোগ্য প্রার্থি নির্বাচন করার কিছু গুরুত্বপুর্ন টিপস।
আপনার ব্যবসায়ের প্রয়োজনীয় ডকুমেন্ট নিন আমাদের থেকে সহজেই। এছাড়া সহজে ট্রেড লাইসেন্স, বাৎসরিক রিটার্ন, শেয়ার হস্তান্তর,ভ্যাট, আমদানি-রপ্তানী, ই- টিন এবং কোম্পানি নিবন্ধন করুন ফাস্ট কনসালটেন্সি অনলাইন ফার্মে।
সহজে এবং কম খরচে, দ্রুত এবং বিশ্বস্ত সেবা গ্রহন করুন।
বিস্তারিত জানতে আমাদের সাথে যোগাযোগ করার উপায়ঃ
📞 মোবাইল / হোয়াটস এপ / ভাইভারঃ
01855-888829


Leave a Reply